রাজধানীতে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ডাকাতি ও চাঁদাবাজি

0
1132

রাজধানীতে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ডাকাতি ও চাঁদাবাজি করছে সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। ডিবি পরিচয়ে মাইক্রোবাসযোগে অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে এই সব অপরাধ করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে গত বুধবার রাতে ডিবির টিম রাজধানীর কমলাপুরে অভিযান চালিয়ে ৮ ভুয়া ডিবি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। তাদের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, মাইক্রোবাস, হ্যান্ডকাপ, ডিবি লেখা জ্যাকেট, দ্ইুটি বেতের লাঠিসহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। তাদেরকে ডিবি হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ডিবি থেকে জানানো হয়েছে, গত বুধবার রাতে ভুয়া ডিবি পুলিশের টিম উত্তর কমলাপুর রবি হেয়ার ড্রেসার সেলুনের সামনে থেকে ৮ প্রতারককে গ্রেফতার করে। তারা মাইক্রোবাসযোগে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তখন তাদেরকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, মোজ্জাম্মেল হোসেন, মো. নুরুল ইসলাম, মো. হানিফ, মো. মাসুম, মো. তানভির, শাহ আলম, বাবুল ও সোহেলসহ মোট ৮ জন। তাদের কাছ থেকে একটি পিস্তল, ১ রাউন্ড গুলি, ১টি ওয়াকিটকি, ১ জোড়া হ্যান্ডকাপসহ অন্যান্য সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, তারা ডিবি পুলিশ পরিচয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শো-রুমসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ডাকাতি করত। তারা রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে মানুষের কাছ থেকে জোর করে সর্বস্ব লুট করে নিত। এছাড়াও ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে যাওয়ার সময় পেছন থেকে লোকজনকে অনুসরণ করে সুবিধাজনক স্থানে গেলে তাদেরকে আটক করে অস্ত্র ঠেকিয়ে সব কিছু ছিনিয়ে নিত। এই সংক্রান্ত শাহজাহানপুর থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

এর আগেও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে একাধিক প্রতারক চক্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা ডিবি পরিচয়ে প্রতারণা ও টাকা পয়সা হাতিয়ে নিত। অনেকেই তাদেরকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে জেনে ভয় পেত। আর অনেকেই ঝামেলা এড়াতে টাকা পয়সা নিয়ে পার পেয়ে যেত। তবে গোয়েন্দা এই সব প্রতারক চক্রকে ধরতে তৎপর রয়েছে।

মন্তব্য করুন