আওয়ামী লীগকে কেউ ফেল করাতে পারবে না-ধমর্মন্ত্রী

0
1231
আওয়ামী লীগকে কেউ ফেল করাতে পারবে না-ধমর্মন্ত্রী

স্টাফ রিপোটার: যুবলীগ সংগঠন দেশের চালিকা শক্তি। যুবলীগ যদি মনে করে ময়মনসিংহের কোন সিটে আওয়ামী লীগকে কেউ ফেল করাতে পারবে না। গতকাল শনিবার ১৪ অক্টোবর দুপুরে নগরীর সিকেঘোষ রোড আব্দুল্লাহ কমিউনিটি সেন্টারে ময়মনসিংহ সদর উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান এ কথা বলেন।

এসময় ধর্ম মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর ঘাতকরা মনে করেছিল আওয়ামী লীগের কোন প্রতিদ্বন্দ্বি থাকবে না। তিনি বলেন, ‘আল্লাহর মাইর দুনিয়ার বাইর’ এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিদ্বন্দ্বি বলতে কেউই নাই। জননেত্রী এখন বিশ্ব নেত্রী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়া ময়মনসিংহে এসেছিল। সে আর্মি স্টাইলে আমাকে ধাক্কা দিয়ে বলেছিল। মতিউর রহমান সাহেব আপনাকে মন্ত্রী করা হবে। সেদিন আমি মেজর জিয়াকে বলেছিলাম আমি বঙ্গবন্ধুর পায়ের কাছে বসে রাজনীতি করেছি, রক্তের উপর বসে মন্ত্রীত্ব করতে পারবো না। অধ্যক্ষ মতিউর রহমান বলেন, সেই মন্ত্রীত্বের অফার ফিরিয়ে দিলে জিয়া বলেছিল আমি বেঁেচ থাকতে মতিউর রহমান কারাগারের বাইরে থাকবে না। সেদিন আমি আল্লাহর কাছে বলেছিলাম আল্লাহ তুমি কবুল করে নাও। অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মো: বদিউল আলম বদি বলেন, দেশের উন্নয়নে আওয়ামী লীগের অবদানের কথা বলতে হবে। নিজে জেনে এবং অপরকে জানিয়ে রাজনীতি করতে হবে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বাচঁলে দেশ বাচঁবে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি । আর অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য দিন রাত কাজ করে যাচ্ছেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো: বদিউল আলম বদি, জেলা যুবলীগ আহবায়ক এড. আজহারুল ইসলাম।

কোতোয়ালী যুবলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি শাহজাহান সরকার এর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন বাচ্চু এর সঞ্চালনয় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান মমতাজ উদ্দিন মন্তা, আকুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আফাজ উদ্দিন সরকার, জেলা যুবলীগ আহবায়ক এড. আজহারুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার মো: রাহাত খান, আখেরুল ইমাম সোহাগ, রফিকুল ইসলাম পিন্টু, মহানগর আওয়ামী লীগ প্রস্তাবিত কমিটির নেতা এড. তাজুল ইসলাম খোকন , কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম শফিক, মহানগর যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক রাসেল পাঠান, কোতোয়ালী যুবলীগ নেতা শহীদুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়াও জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন স্থরের নেতৃবৃন্দসহ জেলা যুবলীগের সকল সদস্যবৃন্দ বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন। বর্ধিত সভায় নেতৃবৃন্দ স্ব স্ব বক্তব্যে আগামী ১ মাসের মধ্যে সদর উপজেলা যুবলীগের সকল ওয়ার্ডও ইউনিয়নে কমিটি সম্পন্ন করে সম্মেলন দেয়ার বিষয়ে ঐক্যমত পোষন করেন। নেতৃবৃন্দ বলেন সদর উপজেলা যুবলীই জেলা যুবলীগের প্রাণশক্তি। এখানে যোগ্য নেতৃত্বকে সামনে এনে সকল শূণ্য পদপদবি পোরন করে সদর উপজেলা যুবলীগ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বলিষ্ঠ ভূমিকায় আবার ময়মনসিংহে নৌকার জয় সুনিশ্চিত করবেন।

মন্তব্য করুন