মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের বর্ণনা শুনে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন-খালেদা জিয়া

0
1036
রোহিঙ্গা শিশু মোবারককে কোলে তুলে নিলেন খালেদা জিয়া। ছবি: সংগৃহীত
রোহিঙ্গা শিশু মোবারককে কোলে তুলে নিলেন খালেদা জিয়া। ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে গিয়ে এক রোহিঙ্গা শিশুকে কোলে তুলে নেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এসময় রোহিঙ্গা নারীদের মুখে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের বর্ণনা শুনে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।

বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান জানান, উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিরতণ শেষে বালুখালী ক্যাম্পের দিকে যাচ্ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন। হঠাৎ তার চোখে পড়ে কয়েক মাস বয়সী ছোট একটি শিশুর কান্না। খানিকটা দাঁড়িয়ে একপর্যায়ে শিশুটিকে কোলে নিয়ে আদর করেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। শিশুটির নাম মোবারক।

সোমবার বেলা ১টার দিকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর অত্যাচারের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের দেখতে ও ত্রাণ বিরতণ করতে উখিয়া আসেন খালেদা জিয়া। ত্রাণ বিতরণের প্রথম ক্যাম্পে আসেন বেলা একটার দিকে। নেতাকর্মী ও উপস্থিত রোহিঙ্গাদের ভিড় ঠেলে নির্ধারিত জায়গায় যেতে ১০ মিনিটের মতো সময় লাগে।

রোহিঙ্গা শিশু মোবারককে কোলে তুলে নিলেন খালেদা জিয়া। ছবি: সংগৃহীত

পরে খালেদা জিয়া বেশ কয়েকজন বয়স্ক ও একাধিক ছোট্ট বাচ্চাদের মাঝে ত্রাণ তুলে দেন। খালেদা জিয়া ফিরে যাওয়ার পর সেখানে রাখা বাকি ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ত্রাণ নেয়ার সময় রোহিঙ্গা শিশুরা হাত তুলে খালেদা জিয়াকে সালাম দেন।

পরে খালেদা তার বক্তব্যে বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর যে ধরনের হামলা হয়েছে তা অমানবিক। তাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মানুষ খুন করা হয়েছে। নারীদের ওপর অবর্ণনীয় নির্যাতন করা হয়েছে। এসবই বিশ্ব গণমাধ্যমে এসেছে।

রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীরা যাতে নির্ভয়ে তাদের দেশে ফিরে যেতে পারে সেজন্য বিএনপি প্রধান মানবিকতার স্বার্থে বিশ্বসম্প্রদায়ের প্রতি ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানান।

বালুকালী পানবাজারে বিএনপির তত্ত্বাবধায়নে ডক্টর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাব পরিচালিত রোহিঙ্গাদের জন্য অস্থায়ী মেডিকেল ক্যাম্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

মন্তব্য করুন