ময়মনসিংহ-৫ আসনের সংসদ সালাহউদ্দিন আহমেদ মুক্তিকে দুদকের নোটিশ

0
1199

ব্যাংক হিসাবসহ সকল সম্পদের তথ্য চেয়ে ময়মনসিংহ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ মুক্তিকে নোটিশ পাঠিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন। দুর্নীতি দমন কমিশনের একজন কর্মকর্তার সঙ্গে মেয়ের বিয়েতে বিপুল আয়োজনের পর ‘অবৈধ সম্পদ’ অর্জনের অভিযোগের মুখে পড়েছেন ময়মনসিংহের এই সংসদ সদস্য।

গতকাল রবিবার বিকেলে দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে সালাহউদ্দিনের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের তথ্য চেয়ে নোটিশ পাঠানো হয় বলে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য‌্য জানিয়েছেন।

নোটিশে সাত কর্মদিবসের মধ্যে তাঁর সম্পদ এবং তাঁর ওপর নির্ভরশীল পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সম্পদের হিসাবও দিতে বলা হয়েছে।

দুদকের অনুসন্ধানে এই সংসদ সদস্যের প্রায় আড়াই কোটি টাকার ‘অবৈধ সম্পদের’ তথ্য উঠে আসায় রোববার কমিশনের এক সভায় তার বিরুদ্ধে সম্পদ বিবরণীর নোটিশ অনুমোদন দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদ মাঠে এই সাংসদের দুই মেয়ের ‘রাজকীয় বিয়ে’ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।

সালাউদ্দিন আহমেদ মুক্তি পুলিশের একজন উপ-পরিদর্শক ও দুদকের একজন উপ-সহকারী পরিচালকের সঙ্গে দুই মেয়ের বিয়ে হয়।

সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, সাংসদ দুই মেয়ের বিয়ের আয়োজনে প্রায় ১৫ হাজার অতিথিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, জবাই করা হয়েছিল ৫০০টি ছাগল। পুরো আয়োজনে খরচ হয়েছিল ‘কয়েক কোটি’ টাকা।

সাংসদের বড় মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক হলেও ছোট মেয়ের বয়স নিয়ে প্রশ্ন উঠে। বিষয়টি নিয়ে দুদকের ওই কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছিল বলে সংস্থাটির একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

এই বিয়ের পরের মাসে সালাউদ্দিন আহমেদ মুক্তির বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ নিয়ে অনুসন্ধান শুরু করে দুদক। পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের তত্ত্বাবধানে উপ-পরিচালক শেখ আবদুস সালাম এই অনুসন্ধান করেন বলে প্রনব কুমার জানান।

তিনি বলেন, “তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধানে স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের তথ‌্য মিলেছে। এসব যাচাই-বাছাই করতেই সম্পদ বিবরণী দাখিলের জন্য নোটিশ অনুমোদন দিয়েছে কমিশন।

সম্পদের তথ্য সংগ্রহ করার পর তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট সূত্র।

মন্তব্য করুন