এক ছেলে ম্যাজিস্ট্রেট এক ছেলে কোম্পানির বড় অফিসার-তাদের বাবা ভিক্ষুক

0
1091
ভিক্ষুক বাবার ছেলেও ম্যাজিস্ট্রেট!

স্টাফ রিপোটার: ছেলে আমার মস্ত বড় মস্ত অফিসার। জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নচিকেতার গানটা সবারই জানা। আবার গানের বিষয়বস্তু বুঝতেও শ্রোতার কোন অসুবিধা হয়না। এ গানের বাস্তবের বাবা হচ্ছেন ময়মনসিংহের গফরগাঁও এক ভিক্ষুক। সারা জীবনের শ্রম ও কষ্ট সবই মনে হয় বিফলে চলে গেল বাবার । জীবনের শেষ সময়ে ভিক্ষাবৃত্তি করে বাচাঁর স্বপ্ন দেখছেন বৃদ্ধা বাবা। ছেলে বড় অফিসার হলেও খোঁজ খবর রাখেন না বাবা-মায়ের।

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজলার মুখী এলাকার বৃদ্ধ মফিজ পাঠানের (৬০) বাস্তব জীবনের কথাই বলা হচ্ছে।

মফিজের এক ছেলে জজ কোর্টের ম্যাজিস্ট্রেট ও আরেকজন একটি প্রাইভেট কোম্পানির বড় অফিসার। দুই ছেলে থাকার পরেও বাবার জীবন চলছে ভিক্ষাবৃত্তি করে।
ভিক্ষাবৃত্তি করা অবস্থায় এমন একটি ছবি ফেসবুকসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে এখন ভাইরাল হয়ে গেছে। সেই ছেলেদের ধিক্কার জানাচ্ছেন অনেকেই। আবার কমেন্টের মাধ্যমে খারাপ মন্তব্যও করেছেন অনেকেই।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর ) বিকালে ভালুকা উপজেলা সদর বাসস্ট্রান্ড এলাকায় ভিক্ষা করতে দেখা যায় মফিজ পাঠানকে। এ ছবিটি এখন যোগযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।

তিনি জানান, স্ত্রীকে নিয়ে ভালুকা উপজেলার খুরুয়ালী গ্রামে একটি ভাড়া বাসায় কোন মতে জীবন চলছে। ভিক্ষা করে যে টাকা পান, তাই দিয়ে চলে সংসার। তার সেই ম্যাজিস্ট্রেট ছেলে পরিবারের কোনো খোঁজ খবর নেন না। তিনি রাস্তায় রাস্তায় মানুষের কাছে হাত পেতে সংসার চালান। অসুখ হলে কোন ছেলেই খবর রাখে না।

স্থানীয়রা জানান, ভিক্ষুক মফিজ অনেক দিন ধরেই ভিক্ষা করে আসছেন। এক ছেলে ম্যাজিস্ট্রেট ও অন্য ছেলে একটি কোম্পানির বড় অফিসার। তবুও তারা বাবা মায়ের খবর নেয় না। বর্তমান ওই বাবা-মায়ের করুণ অবস্থা।

মন্তব্য করুন