‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি জালিয়াতিতে এক শিক্ষার্থীকে আটক

0
1068

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি জালিয়াতিতে এক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মেধা তালিকায় নবম স্থানে থাকা সামিয়াতুল আশরাফিয়া সামির পরিবর্তে ভর্তি হতে আসেন সারেক মো. ইয়ানুর নামে এক শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, ডি ইউনিটের পরীক্ষায় ব্যবসায় শিক্ষা শাখার মেধাতালিকায় (১ম শিফট) সামিয়াতুল আশরাফিয়া সামি (রোল নম্বর ০১১৯৯) ৮৪.১৬৮ স্কোর নিয়ে মেধা তালিকায় ৯ম স্থানে  থাকলেও তিনি ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেননি।

রবিবার ভর্তি কার্যক্রমের প্রথম দিনে রিপোর্ট করার সময় একজন বদলি পরীক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ হয়ে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সময় সারেক মো. ইয়ানুরকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আটক শিক্ষার্থী  ইয়ানুরকে প্রক্সি জালিয়াতি স্বীকার জানান, ভর্তির জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী তোফায়েল নামে একজনের কাছে আড়াই লাখ টাকা দিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জাহিদুল কবীর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, প্রক্সি জালিয়াতিতে অভিযুক্ত একজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই চক্রের সাথে কারা কারা জড়িত তা তদন্তের মাধ্যমে বের হয়ে আসবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবীর বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতিতে যারা জড়িত থাকবে তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জিরো টলারেন্স। প্রমাণ সাপেক্ষে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে।

প্রসঙ্গত, ২৩ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের  ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি জালিয়াতিতে ছয় শিক্ষার্থীকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন