শেখ হাসিনাকে নিয়ে যেকোনো ধরণের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করবে ছাত্রলীগ

0
995

আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, যারা ১৫ আগস্টে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিলো তারা বাংলাদেশের ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে মুছে দিতে চেয়েছিলো। যারা বাংলাদেশকে মানতে পারেনি, তারা বঙ্গবন্ধুকেও মানতে পারেনি। যারা ইতিহাস বিকৃত করে তারা বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে চায়। আর ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেছেন, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনাকে নিয়ে যেকোনো ধরণের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় ছাত্রলীগ প্রস্তুত।

আজ সোমবার রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন তারা। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

ইতিহাস বিকৃতিকারীদের বিষয়ে ছাত্রলীগকে সতর্ক থাকতে হবে উল্লেখ করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, দেশের ইতিহাস জানতে হবে, বুঝতে হবে। ইতিহাসকে যারা মুছে দিতে চেয়েছিলো তাদের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে। দেশকে যারা সা¤প্রদায়িক বানাতে ব্যস্ত তাদের হাতে বাংলাদেশ নিরাপদ নয়। এদের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে ছাত্রলীগকে দায়িত¦ নিতে হবে। কারণ ছাত্রলীগের ইতিহাস বাংলাদেশের ইতিহাস। ছাত্রলীগ হচ্ছে শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড।

অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশকে নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র চলছে। ষড়যন্ত্রকারীরা থেমে নেই। এসব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী প্রস্তুত আছে। কোনো ষড়যন্ত্রই ছাত্রলীগের কাছে টিকবে না। তিনি আরো বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ছাত্রলীগ এগিয়ে চলছে। ছাত্রলীগের সামনে এখন বড় চ্যালেঞ্জ। আগামী জাতীয় নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত করবো-এমন শপথ সামনে রেখে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীকে কাজ করতে হবে। শেখ হাসিনার উন্নয়নের কথা মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দিতে হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর বাবা তাকে বলেছিলেন, শুধু আন্দোলন-সংগ্রাম করলেই চলবে না, লেখাপড়াও করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা বলেছেন, ভালো কর্মী হলেই চলবে না, ভালো ছাত্র হতে হবে। ছাত্রলীগকে এর প্রমাণ দিতে হবে। সংগঠনকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি পড়াশোনা করে দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, কৃষক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ সমীর চন্দ্র, ঢাকা উত্তর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ মশিউর রহমান হুমায়ুন, ছাত্রলীগের সহসভাপতি চৈতালী হালদার চৈতী, উপ-সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমা তুজ জোহরা রুশী প্রমূখ।

মন্তব্য করুন