আদালতের নির্দেশে ফুলপুরে কবর থেকে লাশ উত্তোলন

0
1038

ময়মনসিংহের ফুলপুরে মৃত্যুর প্রায় আড়াই মাস পর রুপচান নামে এক যুবকের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে লাশ উত্তোলনের পর ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, ফুলপুর উপজেলার ছনধরা ইউনিয়নের রামসোনা (কুমারপাড়া) গ্রামের মো. আব্দুল হাইয়ের পুত্র রূপচানের (১৮) সাথে পাশের বাড়ির আলতাব হোসেনের মেয়ে চাচাত বোন পলির (১৮) প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমকে স্বার্থক করতে ছেলে পক্ষ বিয়ের প্রস্তাব দিলে মেয়ে পক্ষ তা প্রত্যাখ্যান করে অন্যত্র মেয়ের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। পরে প্রেমিক রুপচান প্রেমিকা পলির সাথে দেখা করার চেষ্টা করলে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। গত ৬ সেপ্টেম্বর রাতে রুপচান বাড়ি থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর নিখোঁজ হয় এবং পরদিন প্রেমিকা পলির বাড়ির খড়ের পুঞ্জির পাশে রূপচানের লাশ পাওয়া গেলে বিভিন্ন নাটকীয়তার পর ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশের দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে পরদিন মেয়েকে অন্যত্র বিয়ে দেয়া হয়। পরবর্তীতে পরিকল্পিতভাবে রূপচানকে হত্যা করা হয়েছে বুঝতে পেরে পিতা আব্দুল হাই মেয়ে ও স্বামীসহ মেয়ের পরিবারের নয়জনকে আসামি করে আদালতে মামলা করেন। গত ১২ অক্টোবর অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোজিনা খানম ফুলপুর থানাকে লাশ উত্তোলন করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশে ফুলপুর সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আবুল মনসুরের নেতৃত্বে পরিদর্শক (তদন্ত) রুহুল আমীন, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই জালাল উদ্দিনসহ সঙ্গীয় পুলিশের উপস্থিতিতে দুই মাস ১২ দিন পর রবিবার কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

মন্তব্য করুন