দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ গৃহশিক্ষককের বিরুদ্ধে

0
820

 

মাদারীপুর জেলার শিবচরে দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে সুজন নামে এক গৃহশিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাতে অভিযুক্ত গৃহশিক্ষক সুজনকে (২০) আটক করা হয়। আটককৃত সুজন উপজেলার কাবিলপুর গ্রামের ধলু মোল্লার ছেলে।

শিবচর থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের এক ব্যবসায়ীর দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়েকে ১ হাজার টাকা মাসিক চুক্তিতে দেড় বছর ধরে প্রাইভেট পড়িয়ে আসছিলেন নুরুল আমিন।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সুজন ওই ছাত্রীকে পড়াতে তার বাড়িতে যায়। এ সময় ওই ছাত্রীর বাবা ও মা বাড়িতে না থাকায় সুজন স্কুল ছাত্রীটির মুখ চেপে ধরে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে যৌন নির্যাতন করে। ঘরের মধ্যে কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে ওই স্কুল ছাত্রীর দাদি হঠাৎ ঘরে প্রবেশ করে গৃহশিক্ষক সুজনকে অপ্রীতিকর অবস্থায় দেখে চিৎকার দিলে সুজন দৌড়ে পালিয়ে যান।

চিৎকারের শব্দ শুনে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এসে আহতাবস্থায় মেয়েটিকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

শুক্রবার সকালে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

শিবচর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাজাহান মিয়া জানান, মেয়েটিকে ভয় দেখিয়ে যৌন নির্যাতন করেছে বলে আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি। খবর পেয়ে রাতেই অভিযুক্ত গৃহশিক্ষককে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য করুন