হালুয়াঘাটে সরকারি পুকুরে অবৈধভাবে মাছ শিকারের অভিযোগ

0
1032

 

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে সরকারি বিশালাকার একটি পুকুরে অবৈধভাবে মাছ শিকারের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ রয়েছে, সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা- কর্মচারীদের যোগসাজশে একটি মহল এই অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনা করছে1

উপজেলার শাকুয়াই মৌজাধীন পুকুরটির আয়তন ২৪ দশমিক ২৮ একর। স্থানীয়ভাবে পুকুরটি সোনই বিল নামে পরিচিত। বর্তমান বাজারমূল্য ১০ কোটি টাকারও অধিক। পুকুর নিয়ে ইতিমধ্যে ১০টি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে তিনটি নিষ্পত্তি হয়েছে।

উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা গেছে, পুকুরটি সরকারের ‘খ’ তালিকাভুক্ত সম্পত্তি। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুকুরটিতে অগণিত মাছ শিকারীকে বরশিতে মাছ শিকার করতে দেখা গেছে।

শিকারীরা জানান, ১৫ হাজার টাকায় একটি মাচা ভাড়া নেয়া হয়েছে। স্থানীয় মৎস্য শিকারী রুস্তম আলী জানান, বৃহস্পতিবার ৪৫ জন মৎস্য শিকারীর কাছে ছয় লাখ ৭৫ হাজার টাকার মাচা ভাড়া দেয়া হয়েছে।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক), থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ২০০০ সালের ৩০ নভেম্বর দুর্নীতি দমন ব্যুরোর উপ-পরিচালক মোশারফ হোসেন মৃধা বাদী হয়ে হালুয়াঘাট থানায় ভুয়া কাগজপত্র সৃজন করায় অ্যাসিল্যান্ডসহ চারজনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। (মামলা নং-১৯) । এরপর একাধিক মামলা করে দুদক।

অপর মামলায় আসামি করা হয়, দখলদার রহিম খান, ভূপেতি, সজল সরকার, সুমেশ, সুলতান ডাক্তার, আলাউদ্দিন বেগ, আনসার উদ্দিন বেগ, প্রভুত সরকার, আনিছুর রহমান, আরব আলী চেয়ারম্যানসহ ৩০ জনকে।

ওই মামলায় জেলহাজত খেটে জামিন পান, সজল সরকার, রহিম খান, ভুপেতি ভট্টাচার্য ও সুমেশ সরকার। বাকিরাও জামিনে রয়েছেন। আর এ পর্যন্ত মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে তিনটি। বাকি মামলাগুলো আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে জানা যায়।

অপরদিকে বছরের পর বছরেও দখল থাকলেও এখনো উদ্ধার হয়নি সরকারের ‘খ’ তালিকায় থাকা এই সরকারি সম্পত্তি। যে কারণে সরকার প্রতি বছর লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।
হালুয়াঘাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, পুকুরে সরকারি সম্পত্তি রয়েছে। এ নিয়ে দুদকের একাধিক মামলাও রয়েছে। উদ্ধারে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। বিগত সময়ে একটি মহল দখলের পাঁয়তারা করে। খবর পেয়ে তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

বর্শী শিকারিদের কাছে টিকিট বিক্রির বিষয়টি তিনি শুনেননি জানিয়ে বলেন, এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন