আমার ওকে সরি বলা উচিত মাশরাফি

0
1361
ছবি: ক্রাইম নিউজ
ছবি: ক্রাইম নিউজ

জাতীয় দলের হয়ে মাত্র ৪ টেস্ট ও একটি ওয়ানডে খেলা শুভাশীষ রায় দিন দিন যেন তার ঔদ্ধত্যের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এই বিপিএলেই কুমিল্লার লিটন দাশকে আউট করে গালি দিয়েছিলেন তিনি, আজ রংপুর রাইডার্সের জিয়াউর রহমানকে আউট করেও অশোভন আচরণ করেছিলেন তিনি।

কিন্তু মাশরাফির সাথেও যে এমনটা করতে পারেন তা জানা ছিল না দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের। জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়কের দিকে তেড়ে যান জাতীয় দলের নবাগত এই পেসার।

খেলা চলছে ১৭তম ওভারে যেখানে ব্যাটসম্যান হিসেবে স্ট্রাইকিং প্রান্তে রংপুর রাইডার্স কাপ্তান মাশরাফি বিন মর্তুজা। চিটাগং ভাইকিংসের বোলার শুভাশিস রায়ের করা বলটি ম্যাশ খেললেন রক্ষ্মণাত্মক ভঙ্গিতে। সোজা বল হাতে পাওয়ার পর শুভাশিস থ্রো করতে চাইলেন। কিন্তু না করে ছোঁড়ার ভঙি করলেন শুধুমাত্র। এসময় ম্যাশ মনে হয় কিছু একটা বলেছিলেন। বলার ধরণটা অনেকটা বোলারকে বোলিং মার্কে ফিরে যেতে বলা। কিন্তু অন্য দলের ক্যাপ্টেনের এই ব্যাবহার হয়তো ভালো ভাবে নেননি শুভাশিস। তেড়ে আসেন ম্যাশের দিকে।

আম্পায়ার এসে দমানোর চেষ্টা করেন শুভাশিসকে। তার সতীর্থ প্রথমে তানবির হায়দার, পরে জিম্বাবুইয়ান ক্রিকেটার সিকান্দার রাজাও এসে শুভাশিসকে নিভৃত করার চেষ্টা করেন। তাতেও যেন কাজ হচ্ছিল না। মাশরাফির ওপর হামলে পড়বেন যেন চিটাগংয়ের এ পেসার।

মাশরাফি এ সময় কোনো প্রত্যুত্তর করেননি। প্রথমে কিছুটা এগিয়ে এসেছিলেন শুভাশিসের কথা শোনার জন্য। হয়ত কিছু বলেছিলেন। কিন্তু পরে তিনি শুধু অবিশ্বাসের ভঙ্গিতে তাকিয়ে থাকলেন শুভাশিসের দিকে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনেও এই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে মাশরাফিকে। এই প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেছেন, ‘ছেলেরা সব স্মার্ট হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি সিরিয়াস কিছু না। ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এ রকম হয়। ও (শুভাশিস) জিততে চেয়েছে আমিও তাই। আসলে আমার ওকে সরি বলা উচিত। ওর জায়গা থেকে ও ঠিক আছে।’

‘ও আমার ছোট, আমার আরেকটু মাথা ঠাণ্ডা রাখলে ভালো হতো। সিরিয়াস কিছু হয়নি অবশ্যই। আমি জানি না, ওর কী করা উচিত ছিল। কিন্তু সিনিয়র হিসেবে আমার আরেকটু শান্ত থাকলে ভালো হতো’- যোগ করেন মাশরাফি।

মন্তব্য করুন