সরকার বিচার বিভাগে ক্যান্সার ছড়িয়ে দিয়েছে: মাহবুব

0
825

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, সরকার বলেছে, প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা ক্যান্সারে আক্রান্ত আর প্রধান বিচারপতি বলেছেন তিনি অসুস্থ নন। এ কথা বলে সরকার দেশের বিচার বিভাগে ক্যান্সার ছড়িয়ে দিয়েছে।
বুধবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। গত মঙ্গলবার অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি নিয়ে মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, আমরা সব সময় দেখে আসছি বছরে একবার অথবা দুইবার প্রধান বিচারপতি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেন। আপ্যায়িত হন। কিন্তু গত এক মাসে দাওয়াতের সংখ্যা বেড়ে গেছে। বেড়ে গেছে আপ্যায়ানও।
কী এত আলাপ প্রশ্ন রাখেন তিনি? সংবিধান অনুযায়ী তিনি রাষ্ট্রপতি, দেশের অভিভাবক। তার কী এখতিয়ার আছে- তা সংবিধানে উল্লেখ আছে। ইদানীং একটু ব্যতিক্রম দেখা গেছে।
সুপ্রিমকোর্টের প্রেসনোটে বলা হয়েছে, বিচারপতিরা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে গেছেন। আমাদের প্রশ্ন হলো- রাষ্ট্রপতি প্রধান বিচানপতি ছাড়া অন্যদের ডাকতে পারেন কিনা? কোন অনুচ্ছেদের বলে তাদের ডাকলেন।
তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি কী প্রধান বিচারপতির প্রতি পাঁচ বিচারপতিকে সংগঠিত করে আইনি অভ্যুত্থান ঘটাতে বাধ্য করাবেন।
সংবাদ সম্মেলনে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেছেন, অ্যাটর্নি জেনারেল জনগণের পয়সায় বেতনভুক্ত সাংবিধানিক পদে থেকে দেশের সংবিধান, আইনের শাসন, বিচার বিভাগ ও জনগণের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।
তিনি বলেন, ষোড়শ সংশোধনী প্রধান বিচারপতিকে অসুস্থ বানিয়েছে। তিনি যদি ষোড়শ সংশোধনীর রায় না দিতেন তাহলে তিনি আর অসুস্থ হতেন না। আইনজীবী সমিতিকে তিনি (অ্যাটর্নি জেনারেল) বিভক্ত করার চেষ্টা করছেন।

মন্তব্য করুন