সোহেল গণির ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মামলার কামরুজ্জামান গ্রেফতার

0
415

ময়মনসিংহে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) অসালীন মন্তব্য করায়. মো. কামরুজ্জামান (৪২) নামে এক যু্বককে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

মো. কামরুজ্জামান নগরীর জিলা স্কুল রোড এলাকার মো. সোহরাব আলীর ছেলে এবং বহিস্কৃত জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সহ তথ্য ও প্রযুক্তি যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক।

শনিবার (১০ জুলাই) বিকালে ময়মনসিংহ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ড. মোহাম্মদ রাসেদ হোসাইন’র আদালতে তুলা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) আইসিটি মন্ত্রী, পুলিশ ও জেলার স্বনামধন্য রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে অসালীন মন্তব্য করার অভিযোগে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলার পর তাকে গ্রেফতার করে আদালতে তুলা হলে বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

এর শুক্রবার (৯ জুলাই) দ্বিবাগত মধ্যরাতে ময়মনসিংহ জেলা সেচ্ছাসেবলীগের লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল গনি বাদী হয়ে মো. কামরুজ্জামানকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর ওইদিন রাতেই জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) নগরীর জিলা স্কুল রোডের নিজ বাসভবন থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ জেলা সেচ্ছাসেবলীগের লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল গনি বলেন, মো. কামরুজ্জামান দীর্ঘদিন যাবত ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) আইসিটি মন্ত্রী, বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট তথ্য, অপ্রচার ও অসালীন মন্তব্য করে আসছিল।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃত মো. কামরুজ্জামান জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সহ তথ্য ও প্রযুক্তি যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) অপ্রচার ও অসালীন মন্তব্য করার জন্য গত ৬ জুলাই তাকে সেচ্ছাসেবকলীগ থেকে বহিস্কার করা হয়।

মন্তব্য করুন