ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপারের এতিম শিশু ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে ১০০শত পোশাক বিতরণ

0
260

ময়মনসিংহে শতাধিক শীতার্ত মানুষের মাঝে সোয়েটার (শীতবস্ত্র) বিতরণ করা হয়েছে। পুলিশ সুপার কার্যালয়ে রবিবার সন্ধ্যায় পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান এই শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাজহাজান মিয়া, ফজলে রাব্বি, জয়িতা শিল্পী, ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কাচিঝুলিতে অবস্থিত লার্চ বাংলাদেশ প্রতিবন্ধি এবং এতিমসহ সানকিপাড়া এতিমখানার এতিমদের মাঝে সোয়েটার (শীতবস্ত্র) বিতরণ করা হয়। একই সাথে বুদ্ধি প্রতিবন্ধিদের উন্নতমানের আহারের (খাবার) পরিবেশনের জন্য মানবিক পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান নগদ অর্থ বিতরণ করেন। লার্চ বাংলাদেশ প্রতিবন্ধি সংগঠনের সহ সভাপতি ময়মনসিংহের স্বনামধন্য চু বিশেষজ্ঞ ডাঃ কে আর ইসলাম উপস্থিত থেকে এই অর্থ সহায়তা গ্রহণ করেন।
এ সময় পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান বলেন, শীতার্ত, অসহায়দের মাঝে আমাদের সাধ্যের মধ্যে সামান্য সহযোগীতা করছি। এই সহযোগীতা অব্যাহত থাকবে।
অসহায়, দরিদ্র, বেকার, কর্মহীন মানুষের পাশে ধারানো করোনাকালীন সময়ে আলোচিত ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শীতের শুরুতে আবারো নগরীর হতদরিদ্র, অসহায়, বয়োবৃদ্ধ, ছিন্নমূল, অভাবগ্রস্থ মানুষদের খুজে খুজে শীতবস্ত্র বিতরণ করতে উদ্যোগী হন। শীতের শুরতেই ময়মনসিংহ রেলওয়ে স্টেশনে কাপড় চোপড়হীন মানুষদের মাঝে কম্বল বিতরণ করে আবারো আলোচনায় আসে পুলিশ সুপারের মানবিক কর্মকান্ড নিয়ে। এর আগে নগরীর মুকুল নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ে শীতবস্ত্র বিতরণ করে জেলা পুলিশ। এছাড়াও ময়মনসিংহ পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক) ও রেঞ্জের ডিআইজির উদ্যোগে রেলওয়ে স্টেশন ও পুলিশ লাইন্সে পৃথকভাবে প্রায় ১৩ শতাধিক অসহায়, দিনমজুর, শ্রমিক,পঙ্গু নারী পুরুষের মাঝে কম্বল ও সোয়েটার বিতরণ করা হয়েছে। জেলা পুলিশ জানায়, শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ, অসহায়দের মাঝে আর্থিক সহায়তা, খাদ্যহীনদের মাঝে খাদ্য সহায়তা চলমান রয়েছে।

মন্তব্য করুন