ময়মনসিংহে ব্যতিক্রম আয়োজনের মধ্যদিয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত

0
678

স্টাফ রিপোটার: পুলিশের সঙ্গে কাজ করি মাদক-জঙ্গি- সন্ত্রাসমুক্ত দেশ গড়ি এই স্লোগানকে সামনে রেখে শনিবার ময়মনসিংহে উদযাপিত হয়েছে কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০১৯।

ময়মনসিংহ রেঞ্জের সকল জেলা ও থানায় উৎসবমুখর পরিবেশে দিবসটি পালিত হয়েছে।্
ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ কর্তৃক আয়োাজিত কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০১৯ উপলে সকাল ১০টায় র‌্যালী, রক্তদান কর্মসূচি, ডকুমেন্টারি ও কোরিয়গ্রাফ প্রদর্শন, প্রীতি বিতর্ক প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা এবং সনদপত্র বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়।

সকালে রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে টাউনহল এড তারেক স্মৃতি অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা হয়। এর আগে রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি র‌্যালী উদ্বোধন করে। র‌্যালীতে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক, পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন, রেঞ্জ অফিসের এসপি সৈয়দ হারুন অর রশিদ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি অধ্য আমীর আহাম্দ চৌধুরী রতন, সাধারণ সম্পাদক মমতাজ উদ্দিন মন্তা, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামূল আলম, এডভোকেট আনিছুর রহমান খান, আনন্দ মোহন কলেজ অধ্য প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র ভৌমিক, এডভোকেট এএইচএম খালেকুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির, এস এ নেওয়াজী, আল আমিনম, কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম, ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ, ডিআই ওয়ান মোখলেছুর রহমান আকন্দসহ রেঞ্জ ও জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা,রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ এবং ময়মনসিংহের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেনরেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি। এ সময় রেঞ্জ ডিআইজি বলেন, সমাজ থেকে অপরাধী নির্মলে এবং নিরাপদ পরিবেশে বাস করতে ময়মনসিংহ থেকে ইমউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম শুরু হয়। যা আজ সারা বাংলাদেশে ময়মনসিংহ একটি রোল মডেল। এই কমিউনিটি পুলিশিংয়ে ইমাম, রাজনীতিক, শিকসহ সমাজের সকলস্তরের লোক থাকবে। বিত্তশালীরা কমিউনিটি পুলিশে থাকলে অবশ্যই অপরাধ কমবে। আপনারা তথ্য প্রদানের মাধ্যমে পুলিশকে সহায়তা করুন। যাতে সমাজ থেকে মাদক, সন্ত্রাসসহ সকল ধরণের অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা যায়। একই সাথে ইভটিজিং মুক্ত পরিবেশে কুমলমতি মেয়েরা যাতে শিা প্রতিষ্ঠান থেকে নিরাপদে বাড়ি ফিলতে পারে। তিনি সকলের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, থানায় মামলা কিংবা জিডি করতে পুলিশের অন্যায় আচরণ, টাকা পয়সা লেনদেন ও হয়রানীর কোন ঘটনা ঘটলে ঐ থানায় দায়িত্বরত অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ উর্দ্বতন কর্তৃপকে অবহিত করুন। তাৎনিক ঐ পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি আরো বলেন, আমরা চাই সুন্দর দেশ গড়তে। কারা মাদক ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী তাদের তালিকা পুলিশকে দিয়ে সহযোগীতা করুন। কেউ যাতে পুলিকে ব্যবহার করতে না পারে সেই দায়িত্ব আপনাদেরকেই নিতে হবে।

সভার শুরুতে সভাপতি হিসাবে পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন স্বাগত বক্তব্য রাখেন। কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে জবাবদিহিতা নিশ্চিত, সামাজিক সমস্যা নিবারণ, অপরাধ নির্মুল, শান্তি শৃংখলা রায় জনগণ ও পুলিশের মাঝে এক সেতুবন্ধনের সৃষ্টি হয়েছে।
কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি এক ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠান করায় তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়ে এর আগে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক বলেন, ১৯৯৩ সনে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার এটিএম আহমেদ এর সময় কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম ময়মনসিংহে শুরু হয়। এক সময় সমাজের ছোট শ্রেণীর পর্য়ায়ের মানুষ অপরাধ করতো। বর্তমানে অপরাধের ধরণ পরিবর্তন হয়েছে। অর্থবিত্ত ও শিকিরা বর্তমানে নানা অপরাধ করছে। এর মূল কারণ মাদক। তিনি আরো বলেন, সারাদেশের মধ্যে ময়মনসিংহের আইন শৃংখলা অনেক ভাল। সভায় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি অধ্য আমীর আহাম্দ চৌধুরী রতন, সাধারণ সম্পাদক মমতাজ উদ্দিন মন্তা, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এহতেশামূল আলম, এডভোকেট আনিছুর রহমান খানসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

এর আগে জেলা পুলিশের আয়োজনে পুলিশ জনতার মেল বন্ধনই পারে আইন মান্যের সংস্কৃতি গড়তে এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বিতর্ক প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগীতায় আনন্দ মোহন কলেজ ও ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ শিার্থীরা অংশ নেন। প্রতিযোগীতায় পুলিশ জনতার মেল বন্ধনই পারে আইন মান্যের সংস্কৃতি গড়তে এই প্রতিপাদ্যের বিপ দল ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ শিার্থীরা বিজয়ী হয়। তাদের প্রাপ্ত নম্বর ৫৭১। অপরাজিত দল পুলিশ জনতার মেল বন্ধনই পারে আইন মান্যের সংস্কৃতি গড়তে এই প্রতিপাদ্যের পরে দল আনন্দ মোহন কলেজ শিার্থীরা পেয়েছে ৫৬০। প্রতিযোগীতায় বিরোধী দলীয়নেতা আশরা আনিকা তানহা শ্রেষ্ট বক্তা হিসাবে নির্বাচিত হন। পরে তাদেরকে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

মন্তব্য করুন