ময়মনসিংহে বিটপুলিশিং এর সফলতা সাজা প্রাপ্ত ৫ আসামীর আত্নসমর্পন

0
126
ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানায় ওসি শাহ কামাল আকন্দ পিপিএম (বার) যোগদান করার পর বিট পুলিশিং কার্যক্রমকে ব্যাপক ভাবে চাঙ্গা করেন। কোতোয়ালী থানা এলাকায় বিভিন্ন ওয়ার্ডে ও বিভিন্ন ইউনিয়নে স্থানীয় লোকজন নিয়ে সভাকরে পুলিশী সহজসেবা পাওয়ার উপায় ও আইন প্রয়োগে কঠুরতার কথা জানিয়ে দেন। ফলে বিট পুলিশিং এর তৎপরাতায় ৫ জন সাজাপ্রাপ্ত আসামী বিজ্ঞ আদালতে আত্মসমর্পন করেন। এছাড়াও বিভিন্ন মামলার পলাতক আসামীরা আদালতে আতœসমর্থনে উৎসাহিত হয়েছে। পলাতক থাকাটা জেল হাজতে থাকার চেয়ে বেশী কস্ট বলে অনেকে জানিয়েছেন।
গেলো মাসের ১৯ তারিখ কোতোয়ালী মডেল থানায় অফিসার ইনচার্জ হিসেবে শাহ কামাল আকন্দ যোগদান করেন। পুলিশী সেবা জনগনের দোড়-গোড়ায় পৌছে দিতে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি ইতিমধ্যে বেশ কিছু স্থানে সভা করে জনসচেতনা বাড়িয়ে দিয়েছেন। পুলিশি সেবা পাওয়ার সহজ উপায় গুলোও জানিয়ে দিয়েছেন। এর সুফলতায়, কোতোয়ালী মডেল থানা এলাকায় বিট পুলিশিং এর কর্মতৎপরতায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী সবুজ মিয়া ওরফে ছবু, পিতা- নুরুল মিয়া, রুহুল মিয়া, পিতা-নুরুল মিয়া, নুরুল মিয়া, পিতা মৃত-হাতিম উদ্দিন, সুরুজ মিয়া, পিতা মৃত-মফিজ উদ্দিন, ও সোহেল ওরফে রাসেল, পিতা- সুরুজ মিয়া, সর্ব সাং-চর নিলক্ষীয়া, সর্ব থানা-কোতোয়ালী, জেলা-ময়মনসিংহগন বিজ্ঞ আদালতে হাজির হইয়া আত্মসমর্পন করেন।
ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি, পুলিশ সুপার এর সার্বিক দিক নির্দেশনা মোতাবেক কোতোয়ালী মডেল থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ, মোহাম্মদ শাহ্ কামাল আকন্দ পিপিএম (বার) প্রতিনিয়ত থানা এলাকায় বিট পুলিশিং এর কার্যক্রমের অংশ হিসাবে উঠান বৈঠক করায় জনগনের সাথে পুলিশের নিবিড় সম্পর্ক তৈরী হওয়ায় জনগনের মধ্যে অপরাধ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি পাওয়ায় থানা এলাকায় অপরাধ প্রবনতা কমে যাচ্ছে এবং জনসাধারনের চাপের মুখে গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত অপরাধীরা বিজ্ঞ আদালতে আত্মসমর্পন করছে। বিট পুলিশিং এর কার্যক্রমের ফলে আইনশৃংঙ্খলার প্রতিরোধের বিষয়ে পুলিশের সাথে জনসাধারনের একাত্বতা ঘোষনা করায় অপরাধ প্রবনতা এক সময় শূন্যের কোটায় হৃাস পাবে বলে সুশীল সমাজ মনে করেন।

মন্তব্য করুন