মাসুম উপর হামলায় যুবলীগের ২০ নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা গ্রেফতার-৩

0
5113
এজাহার ভুক্ত ৩ জন আসামী সৌরভ, হরিবল ও মোস্তফো
    এজাহার ভুক্ত ৩ জন আসামী সৌরভ, হরিবল ও মোস্তফো

স্টাফ রিপোটার : ময়মনসিংহে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা শেখ শাহ আলম মাসুমকে (৩৫) কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় যুবলীগের ২০ নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে নাজমুল হাসান জনি।

এ ঘটনায় এরই মধ্যে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ।

ওসি কামরুল ইসলাম বলেন, এরই মধ্যে মামলাটি তদন্তের জন্য উপপরিদর্শক (এসআই) তাজুল ইসলামকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া হামলার জড়িত এজাহার ভুক্ত ৩ জন আসামী সৌরভ, হরিবল ও মোস্তফো নামের তিনজনকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকিদেরর যত দ্রæত সম্ভব গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানান।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত সোমবার দুপুরে শহরের বাঘমারা ডিফেন্স পাট্রির কার্যালয়ে মাসুমের সঙ্গে আসামিদের কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে। ঘটনা মিটমাট করার কথা বলে রাত পৌনে ৯টায় পারভেজ মোবাইলে ফোন করে মাসুমকে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন পার্কের সারিন্দা হোটেলে ডেকে নেন। সেখানে পারভেজ,রাজিব,শামিম বিরোধ নিয়ে আলোচনা করে সমাঝোতা করেন।

মাসুম সারিন্দার মেইন গেইট থেকে বাহিরে রনির মোটরসাইকেল ষ্টার্ট দেওয়া মাত্র মাসুম রনি”র মটর সাইকেলে উঠতে গেলে রাসেল পাঠানের নির্দেশে সবাই দৌড়ে আসলে রনি পালিয়ে যায়। বাকী আসামীরা সবাই এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও পায়ে গুলি করে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় বলে মামলায় বর্ণনা দেওয়া হয়েছে।

একটি সুত্র জানায়, সেখানে আগে থেকেই রামদা, চাপাতি, কিরিচ ও পিস্তল নিয়ে আসামিরা অপেক্ষা করছিলেন। মাসুম ঘটনাস্থলে পৌঁছালে রাসেল পাঠানের নির্দেশে দুর্বৃত্তরা এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
মামলার বাদী দাবি করেছেন, তিনি ঘটনাস্থলের সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজ দেখে আসামিদের শনাক্ত করেছেন।

এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা হলেন মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহŸায়ক রাসেল পাঠান (৩৬), কর্মী রাজিব খান (৩০), জাহিদ হাছান শামীম ওরফে কাইল্যা শামীম (২৮), বাছির মন্ডল (২৭), সুমন সরকার (২৯), সাদ্দাম (২৫), নীরব চৌধুরী নয়ন (২৮), দীপক সরকার রাজিব (২৯), পারভেজ (২৮), শ্রী হরিবল(২৫), মুছা (৩০), রাজিব (২৬), আরিফুল ইসলাম ওরফে জনি (২৮), তানভীর তাহের সৌরভ (২৮),মনা (২৫), রাসেল (২৪), ঝন্টু (২৫), ফরিদ ওরফে গুলি ফরিদ (২৬), মোস্তফা ওরফে মস্তু (৪২), মঈন (২৭)।

এদিকে এই হামলার প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার বিকেলে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ। সমাবেশ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সব আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়। না হলে অবরোধ, হরতালের মতো কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন নেতারা।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন