মশক নিধন ও পরিচ্ছন্ন কার্যক্রমের প্রচারাণা কার্যক্রমে মসিক মেয়র টিটু

0
901

স্টাফ রিপোটার: ডেঙ্গু জ্বর সম্পর্কিত সচেতনতা সৃষ্টি ও পরিচ্ছন কার্যক্রমে শহরের বিভিন্ন শিার্থী প্রতিষ্ঠানসহ সাধারণ মানুষের মাঝে লিফলেট বিতরণ ও প্রচারণা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামূল হক টিটু। বুধবার বিকালে ময়মনসিংহ সরকারী ল্যাবরেটরী স্কুলে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম উদ্বেধন করেন।

ময়মনসিংহ সিটি এলাকায় ডেঙ্গুবাহি (এডিস) মশা নিধনকল্পে সপ্তাহব্যাপী ফগার মেশিনের মাধ্যমে ওষুধ ছিটানো কার্যক্রম শেষে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন কাজে শিশু কিশোর, শিক্ষাথীসহ সাধারণ মানুষকে উৎসাহী, আগ্রহী ও সচেতন করতে এ প্রচারণা শুরু করেন।
এ সময় সিটি করপোরেশন নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ রফিকুল ইসলাম মিয়া, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আসিফ হোসেন ডন, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এইচ কে দেবনাথ, সেনিটারী পরিদর্শক দীপক মজুমদার, কনজারভেটিভ পরিদর্শক মহব্বত আলী, ল্যাবরেটরী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ শিক্ষক ও স্থানীয় এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন। পরে মেয়র স্কুলের মশক নিধনকল্পে ফগার মেশিন চালু করে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এর আগে গত ২৫ জুলাই শহরের আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজে পৃথক সভার মাধ্যমে মেয়র ইকরামূল হক টিটু সপ্তাহব্যাপী মশক নিধন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। টানা একসপ্তাহে শহরের ৪,৬,৭,৮,৯,১৪, ২১ নং ওয়ার্ডে ৫টি ফগার মেশিনের মাধ্যমে মশক নিধন ওষুধ দেওয়া হয়। এ সময়ে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও বিভিন্ন ছাত্রাবাস, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, মহিলা কলেজ, মহকালি স্কুল এন্ড কলেজ, জিলা, বিদ্যাময়ী, ল্যাবরেটরী স্কুল, মুমিনুন্নিসা কলেজসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে গুরুত্ব দিয়ে সবার আগে মশক নিধন ওষুধ ছিটানো হয়। বিভিন্ন ওয়ার্ডে মশক নিধন কার্যক্রম সরেজমিনে উপস্থিত থেকে সিটি করপোরেশন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ও সচিব মোঃ আব্দুল হালিমসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলর, সংরতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাগণ পরির্দশন করেন।

সিটি করপোরেশনের সেনিটারী পরিদর্শক দীপক মজুমদার জানান, আমাদের ৫টি ফগার মেশিনের মাধ্যমে মশক নিধন ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। প্রয়োজনের তুলনায় পরিমাণে কম সংখ্যক ফগার মেশিণ থাকায় ওষুধ ছিটনানো ধীরগতিতে হচ্ছে। সপ্তাহব্যাপী মশক নিধন কার্যক্রম হলেও পুরো সিটি করপোরেশন এলাকায় শেষ করা সম্ভব হয়নি। সপ্তাহব্যাপী বলে কোন কথা নেই, পুরো সিটি এলাকায় মশক নিধন ওষুধ ছিটানো শেষ না হওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এছাড়া আরো অধিক সংখ্যক ফগার মেশিন কেনার চেষ্ঠা চলছে। তবে ঢাকাসহ সারাদেশের কোথাও বর্তমানে মেশিন না থাকায় তা কেনা বিলম্ব হচ্ছে।

মন্তব্য করুন