প্রেমের ফাঁদে ফেলে ব্যবসায়ী অপহরণ-৫ সদস্যকে গ্রেফতার

0
1008

প্রেমের ফাঁদে ফেলে ব্যবসায়ী অপহরণের ঘটনায় বগুড়ায় এক আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার ভোর রাতে নন্দীগ্রাম ও শাজাহানপুর থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে অপহৃত ব্যবসায়ীদের উদ্ধার করা হয়। এসময় অপহরণ চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা যায়, প্রেমের অভিনয় করে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ব্যবসায়ী আমজাদ আলী ও তার চাচাতো ভাই আব্দুল হালিমকে জয়নাব বেগম জয়া (৩২) নামে এক নারী ২৫ নভেম্বর শাজাহানপুর এলাকায় ডেকে নেয়। পরে তাদেরকে জিম্মি করে ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। জয়া নন্দিগ্রাম উপজেলার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আশরাফ আলীর স্ত্রী। অপহরণের সময় জয়ার সঙ্গে আরো ৫-৬ জন সদস্য ছিলো।

শাজাহানপুর থানার এসআই জাহাঙ্গীর কবির জানান, প্রেমের অভিনয় করে গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার ব্যবসায়ী আমজাদ আলী ও তার চাচাতো ভাই আব্দুল হালিমকে ডেকে এনে শনিবার দুপুরে শাজাহানপুর উপজেলার শাকপালা থেকে অপহরণ করা হয়। এরপর অপহৃতদের মোবাইল ফোন থেকে তাদের ভাগিনা শাহ আলমের কাছে ৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ওইদিন রাতে অপহৃতদের ভাগিনা শাহ আলম বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৫/৬ জনকে আসামি করে শাজাহানপুর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে। তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহারে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই জাহাঙ্গীর কবির অপহৃতদের উদ্ধারে তৎপরতা চালায়। পরে রোববার ভোর রাতে নন্দীগ্রাম থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাকের উপস্থিতিতে পৌর সদরের নন্দীগ্রাম ফিলিং স্টেশন এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা কাঠুরিয়া আশরাফ আলীর বাড়িতে অভিযান চালায় শাজাহানপুর থানা পুলিশ। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টেরপেয়ে আশরাফ আলী পালিয়ে যায়। অভিযানে তার বাড়ি থেকে অপহৃত দুই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

অপহৃতদের বর্ণনার সূত্র ধরে নন্দীগ্রাম উপজেলা জুড়েই দফায় দফায় অভিযান চালিয়ে অপহরণ চক্রের সদস্য উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের মৃত অছিম উদ্দিনের ছেলে মুকুল শেখ (২৮), আশরাফের স্ত্রী জয়নাব জয়া (৩২), চকপাড়া গ্রামের ইউসুব আলীর স্ত্রী রিনা বেগম (২২), পৌর শহরের ঢাকুইর গ্রামের মানিক মিয়ার স্ত্রী জোসনা বেগম (৩৬) ও গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ প্রধানপাড়ার রেজাউল করিমের স্ত্রী রানী বেগমকে (৩৮) গ্রেফতার করে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নন্দীগ্রাম থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, অপহরণ চক্রের মূলহোতা আশরাফ আলীর বাড়ি থেকে অপহৃতদের উদ্ধার করা হয়েছে। আশরাফ আলীকে গ্রেফতারে শাজাহানপুর থানা ও নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ তৎপর রয়েছে।

মন্তব্য করুন