‘দেশরত্নের নির্দেশে ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের অনুপ্রেরণায় কৃষকের পাশে ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ’

0
716

করোনাভাইরাসের প্রভাবে শ্রমিক সঙ্কট থাকায় কৃষকের জমির ধান কেটে দিয়েছে ময়মনসিংহ জেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আজ বুধবার (২৮ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বাইপাস মোড়ে গ্রামের এক গরিব কৃষকের দুই বিঘা জমির পাকাধান রোজা রেখে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা কেটে মাড়াই করে বাড়ি পৌঁছে দেন।

ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ নেতা তানভীর যোবায়ের ইসলাম তারিনের নেতৃত্বে অসহায় এই কৃষকের ধান কাটায় জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

তানভীর যোবায়ের ইসলাম তারিন জানান, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য তনয়া গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সভাপতি এডভোকেট মোঃ জহিরুল হক খোকা, জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সহসভাপতি আমিনুল হক শামীম (সিআইপি) ও আধুনিক ময়মনসিংহের রুপকার, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের জননন্দিত নগরপিতা ইকরামুল হক টিটুর অনুপ্রেরণা ও সার্বিক সহযোগিতায়- তার অনুসারীদের নিয়ে গত বছরও করোনাকালে কয়েক কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন।

করোনা মহামারির কারণে চলমান লকডাউনে শ্রমিক না পেয়ে মাঠের পাকা ধান কাটা নিয়ে চিন্তিত ছিলেন কৃষক রুবেল। এমন সময় তার পাকা ধান কাটায় এগিয়ে আসে ছাত্রলীগ।

রুবেল চাষী বলেন, ‘গত দুদিন আগে আমার জমির ধান পেকেছে। কিন্তু কাটার জন্য শ্রমিক পাচ্ছিলাম না। ছাত্রলীগের ভাইয়েরা ধান কেটে দেয়ায় আমার অনেক উপকার হয়েছে।’

জেলা ছাত্রলীগের মেধাবী ও পরিশ্রমী ছাত্রনেতা তানভীর যোবায়ের ইসলাম তারিনের নেতৃত্বে গত বছরের ন্যায় এবছরও লকডাউনে শ্রমিক সংকটে পড়ায় কিসমত এলাকার গরীব বর্গা কৃষকের (রুবেল চাষী) পাচ কাঠা ফসলি জমির পাকা ধান কেটে তার ঘরে তুলে দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন