ময়মনসিংহ গাঙ্গিনার পাড়ে সারাদিন ফুটপাত সন্ধার পর মাছের বাজার

0
2820

স্টাফ রিপোটার : ময়মনসিংহ গাঙ্গিনারপাড়ে গড়ে উঠেছে অসংখ্য ফুটপাত। কেহ দেখে না ? যারা দেখবে তারা কালো চশমা পরে বসে আছে। লোভ দেখানো অভিযান গুলো এখন সাধারণ মানুষ আরো বেশি কৌতুহল সৃষ্টি করে। ময়মনসিংহ শহরের গাঙ্গিনারপাড় বলা যায় যে লাউ সে কদু।

পথচারীরা যেন স্বচ্ছন্দে ফুটপাত ধরে হাঁটতে পারে -এ লক্ষে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসন ও পৌর কতৃপক্ষ সর্বাত্মক অভিযানের ফলে ফুটপাত হকারমুক্ত করার পর নগরবাসী একটু স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল। কিন্তু সে স্বস্তির রেশ বেশিদিন টিকলনা। মাস না পেরোতেই এখন তা আবার পুরোপুরি বেদখলে চলে গেছে। ফলে ময়মনসিংহ নগরবাসীকে দখলমুক্ত ফুটপাত উপহার দেওয়ার প্রয়াস অনেকটা অধরাই থেকে গেল।

গতকাল স্টেশন রোড, বারী প্লাজার,হোটেল হেরা,গাঙ্গিনার পার ট্রাফিক মোড়সহ নগরীর ব্যস্ততম এলাকাগুলো ঘুরে দেখা গেছে, সেখানে আগের মতো হকারদের দৌরাত্ম্য না থাকলেও পথচারীরা দখলমুক্ত ফুটপাত দিয়ে হাঁটার সুযোগ পাচ্ছে না। ফুটপাত জুড়ে সারি সারি বসে আছে কাপড়, জুতা, কসমিটেকস এদের সঙ্গে যোগ হয়েছে সন্ধার পর মাছের বাজার! এটি নিত্য দিনের চিত্র।

এসব ফুটপাতের দোকানীদের জন্য পথচারীরা হাটার সময় যানযট বেজে থাকে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে দেয় উৎপাতা ছিনতাইকারী দল। পথচারীদের হাতে থাকা ব্যাগের চেইন খুলে মোবাইল ফোন, টাকা, কাপড় ইত্যাদি ছিনিয়ে নিয়ে যায় চোরের দল। মহিলাদের গলা থেকে চেইন, কানের দোল নিয়ে যায়। এসব ঘটনা গাঙ্গিনার পারে এখন নিত্যদিনের।

গাঙ্গিনারপাড় এলাকার পথচারী একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো. রিয়াদের সাথে কথা বললে তিনি ােভের সঙ্গে বলেন, পৌরসভার অকান্ত প্রচেষ্টায় ফুটপাত হকারমুক্ত করার পর আমাদের আনন্দের সীমা ছিল না। সপ্তাহ-দুয়েক ফুটপাত দিয়ে নির্বিঘেœ হাঁটতেও পেরেছি। কিন্তু এখন তা আবার আগের মতো হয়ে গেছে।

ময়মনসিংহ ১নং ফাড়ি টিএসআই আশরাফুল আলম বদলি হওয়ার পর থেকে গাঙ্গিপারে আবারো ফুটপাত বসে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে ছিনতাইকারী চক্র পথচারীদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিচ্ছে মুল্যবান জিনিস পত্র।

 

 

মন্তব্য করুন